AnuTrickz
QUESTION or DOUBT ? You can Ask Questions and Receive Answers from other members of the community
Ask Me

Join Us





এন আর সি ও সি এ এ বিরোধী আন্দোলন | | Anti-NRC and Anti-CAA Movement

 
এন আর সি ও সি এ এ বিরোধী আন্দোলন | | Anti-NRC and Anti-CAA Movement

এন আর সি ও সি এ এ বিরোধী আন্দোলন | | Anti-NRC and Anti-CAA Movement


একজন আধুনিক কবি উদ্বাস্তু সমস্যার রক্তাক্ত হৃদয়ে উচ্চারণ করেছেন, "এবার নির্বাসন দিলে আমি বিষ খেয়ে মরে যাব।"  বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম জনবহুল দেশ ভারতবর্ষ তাদের নাগরিকদের তালিকা তৈরি করতে এবং প্রতিবেশী দেশ থেকে আশা অনুপ্রবেশকারীদের নাগরিকত্ব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকার ন্যাশনাল রেজিস্টার অফ সিটিজেনস (এন আর সি) অর্থাৎ জাতীয় নাগরিক পঞ্জি এবং ন্যাশনাল রেজিস্টার অফ সিটিজেনশিপ আমেন্ডমেন্ট অ্যাক্ট ( সি এ এ) অর্থাৎ সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন চালু করেছে।


                      প্রসঙ্গত উল্লেখ্য,  ভারতীয় সংবিধানের দ্বিতীয় অধ্যায় 5 থেকে 11 অনুচ্ছেদে নাগরিকত্ব নিরূপণ, প্রার্থী, গ্রহণ ও বর্জন বিষয়ে বলা আছে। কেন্দ্রীয় সরকার সারাদেশে নাগরিক পঞ্জি তৈরি করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়। 1971 সালের 24 শে মার্চের আগে যেসব পরিবারের নাম ভোটার তালিকায় আছে তাদের নাম নাগরিকপঞ্জি থাকবে। অপরদিকে 2019 সালের 12 ই ডিসেম্বর রাষ্ট্রপতি স্বাক্ষর করায় সংশোধিত নাগরিকত্ব বিল আইনে পরিণত হয়েছে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনে বলা হয়েছে। পাকিস্তান আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে হিন্দু বৌদ্ধ ও জৈন ফারসী খ্রিস্টান জনগোষ্ঠীর যারা 2014 সালের 31 ডিসেম্বর পর্যন্ত ভারতীয় ভূখণ্ডে প্রবেশ করেছেন তারা নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারবেন। 1955 সালে ভারতীয় নাগরিকত্ব আইনে নাগরিকত্ব পাওয়ার জন্য 11 বছর বসবাস করতে হত। সংশোধিত আইনে পাঁচ বছর বসবাস করলেই নাগরিকত্ব মিলবে। নাগরিকত্বের জন্য কোনো নথি দেখাতে হবে না। সংবিধানের ষষ্ঠ তপশিলের অন্তর্গত অসম, মেঘালয়, ত্রিপুরা, মিজোরাম উপজাতিভুক্ত এলাকায় এই আইন কার্যকর হবে না। অনেকে এই আইন ভারতীয় সংবিধানের 14 নম্বর ধারায় বিরোধী মনে করেন।স্বাধীন ভারতের ঐতিহাসিক বৈষম্যমূলক আইনের প্রতিবাদে জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে সমস্ত মানুষ এক হয়েছেন। উত্তর-পূর্ব ভারত সহ পশ্চিমবঙ্গ, কেরালা পাঞ্জাব, দিল্লী বিভিন্ন জায়গায় অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি তৈরি হয়। দেশজুড়ে প্রতিবাদী আন্দোলনেও কেন্দ্রীয় সরকার এন আর সি ও সি এ এ প্রত্যাহার না করার সিদ্ধান্ত নেয়।


Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad

Ads Area